বিজ্ঞানশিক্ষা

প্রশমন বিক্রিয়া কাকে বলে

প্রশমন বিক্রিয়া কাকে বলে: রসায়নে বিভিন্ন ধরনের রাসায়নিক বিক্রিয়ার মধ্যে একটি অন্যতম। বিভিন্ন ক্ষেত্রে এবং মানব জীবনে দৈনন্দিন ভাবে প্রশমন বিক্রিয়ার গুরুত্ব ও তাৎপর্য অপরিসীম।

এছাড়াও শিক্ষার্থীদের পরীক্ষামূলক বিভিন্ন পদ্ধতির মাধ্যমে অংশগ্রহণের জন্য প্রশমন বিক্রিয়া কাকে বলে এবং প্রাসমান বিক্রয় সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানা প্রয়োজন। এজন্য উক্ত পোস্টের মাধ্যমে আমরা আপনাদের কে প্রশ্নের বিক্রয় সম্পর্কে জানাচ্ছি। 

রসায়নে বিক্রিয়া সম্পর্কে বিভিন্ন ভাগে ভাগ করা যায়। প্রকারভেদের হিসাব অনুযায়ী বিভিন্ন ধরনের রাসায়নিক বিক্রিয়ার মধ্যে অন্যতম একটি বিক্রিয়া হলো প্রশমন বিক্রিয়া। প্রশমন বিক্রিয়া ল্যাবরেটরী সহ মানব জীবনে বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয়তা এবং উপকারী ভূমিকা পালন করে। 

পলি শিক্ষার্থীদের শিক্ষা অর্জনের ক্ষেত্রে এবং মানব জীবনে প্রতিফলনের ক্ষেত্রে প্রশমন বিক্রিয়া সম্পর্কে যথাযথভাবে জানা প্রয়োজন। 

প্রশমন বিক্রিয়া কাকে বলে

যে সকল রাসায়নিক বিক্রিয়ায় একটি এসিড এবং একটি ক্ষার পরস্পর একে অপরের সাথে বিক্রিয়ার মাধ্যমে প্রশমিত হওয়ার মাধ্যমে লবণ এবং পানি উৎপন্ন করে সেই সকল বিক্রিয়াকে প্রশমন বিক্রিয়া বলা হয়। 

প্রশমন বিক্রিয়ার ক্ষেত্রে সর্বদা কোন একটি এজিদ এবং খাওয়ার পরস্পরে একে অপরের সাথে বিক্রিয়া সম্পাদন করে। ফলে বিক্রিয়ক সমূহ প্রশমিত হয় এবং লবণ ও পানি উৎপন্ন হয়। 

যেমন :-

NaoH(aq)  +Hcl (aq) → Nacl(aq) + H2O (l)

কয়েকটি প্রশমন বিক্রিয়ার উদাহরণ

সাধারণভাবে একটি এসিড এবং একটি ক্ষার পরস্পরের সাথে বিক্রিয়া করার মাধ্যমে প্রশমিত হয়ে লবন এবং পানি উৎপন্ন করে। নিম্নে  কয়েকটি প্রশমন বিক্রিয়ার উদাহরণ তুলে ধরা হলো:- 

  • + NaoH → Nacl + H20,,,,,, 
  • H2SO4 + Mg(OH)2 → MgCl2 + H2O,,,,
  • HCl + MaO → MaCl2 + H2O,,,
  • H2SO4 + 2NaOH → Na2SO4 + H2O
  • HCl + KOH  →  KCl + H2O
  • HNO3 + Ca(OH)2 →  Ca(NO3)2 + H2O

প্রশমন তাপ কাকে বলে

একটি এসিড এবং একটি ক্ষার বিক্রিয়া করে যে লবণ এবং পানি উৎপন্ন করে সে বিক্রিয়া হলো প্রশমন বিক্রিয়া। প্রশমন বিক্রিয়া ক্ষেত্রে এটি একটি তাপ উৎপাদী বিক্রিয়া।

তবে এর বিশেষত্ব হল এই যে এখানে বিপ্লব হিসেবে যে এসিড বা খায় থাকুক না কেন বিক্রিয়ার উৎপন্ন তাপ সর্বদা ধ্রুব থাকে। 

যেহেতু প্রশমন বিক্রিয়ার মাধ্যমে এসিড এবং ক্ষার বিক্রিয়া করার মাধ্যমে যে উৎপাত তৈরি হয় তা সর্বদা ধ্রুব থাকে সেহেতু এই তাপ কে  প্রশমন তাপ বলা হয়। 

অর্থাৎ একটি প্রশ্ন বিক্রিয়ায় উৎপাত বাজের ধ্রুব সংখা হিসেবে উৎপাতে উৎপন্ন হয় সে ক্ষেত্রে তাপ সর্বদা ধ্রুব থাকে তাই সে তাকে প্রশমন তাপ বলা হয়। 

প্রশমন বিক্রিয়া একটি নন রেডক্স বিক্রিয়া কেন

সাধারণভাবে প্রশমন বিক্রিয়াকে একটি নন-রাস বিক্রিয়া বলা হয়। প্রশমন বিক্রিয়াকে কখনো রেডক্স বিক্রিয়া বলা হয় না কারণ প্রশমন বিক্রিয়া কোন রাডক্স বিক্রিয়া নয়। তাছাড়া প্রশ্ন বিক্রিয়ার ক্ষেত্রে ইলেকট্রনের কোন আদান-প্রদান ঘটে না।

যেহেতু একটি এসিড এবং একটি ক্ষার বিক্রিয়ার মাধ্যমে প্রয়ো সমান বিক্রিয়া সম্পন্ন হয় এবং বিক্রিয়ায় কোন ইলেকট্রনের আগান প্রদান ঘটেনা সেহেতু প্রশমান বিক্রি একটি রেডক্স বিক্রিয়া নয় বরং এটি একটি  নন রেডক্স বিক্রিয়া। 

প্রশমন বিক্রিয়া ব্যাখ্যা কর

যে সকালের রাসায়নিক বিক্রিয়ার ক্ষেত্রে একটি এসিড এবং একটি খার পরস্পরে একে অপরের সাথে বিক্রিয়া সম্পন্ন করার মাধ্যমে একটি প্রশ্ন বিক্রিয়া সম্পন্ন করে এবং বিক্রিয়ার ফলে উৎপাত হিসেবে লবণ এবং পানি উৎপন্ন করে সেই সকল বিক্রিয়া হলো প্রশমিত বিক্রিয়া বা নন রেডক্স বিক্রিয়া। 

এক্ষেত্রে বিক্রিয়া সম্পন্ন হওয়ার মাধ্যমে এসিড বা ক্ষারের দুর্বলতা অথবা সফলতার উপর নির্ভর করে লবণ এবং পানি উৎপন্ন হয়। 

অর্থাৎ যদি কোনো প্রশমন বিক্রিয়ার ক্ষেত্রে একটি এসিড এবং একটি ক্ষার পরস্পরের মাধ্যমে বিক্রিয়া করে সমতা অর্জন করে এবং প্রচলিত হয় তবে সেক্ষেত্রে বিক্রিয়ক সমূহের দুর্বলতা এবং সফলতা উপনির্ভর করে একটি বিক্রিয়া সম্পন্ন হয়ে থাকে। 

প্রশমন বিক্রিয়া কাকে বলে

প্রশমন বিক্রিয়ার গুরুত্ব

  • খাদ্য পরিপাকের ক্ষেত্রে :-

পাকস্থলীতে অতিরিক্ত হাড়ে এসিডের পরিমাণ বৃদ্ধি পেলে সেখানে হাইড্রোক্লোরিক এসিড নিঃসৃত করে। এ এসিড দিয়ে মানুষের পেটে ব্যথা এবং অস্বস্তিকর পরিস্থিতি তৈরি করে। যাকে  এসিডিটি বলা হয়। তাই এ সমস্যার সমাধানে এন্টাসিড জাতীয় এক ধরনের ঔষধ খাওয়া হয়। এন্টাসিডে থাকে –

Al(OH)3 এবং  Mg(OH)2,,

যাতে রয়েছে ক্ষার জাতীয় পদার্থ। ফলে এগুলো সাথে বিক্রিয়া করে পেটের অস্বস্তিবোধকে কমায় এবং রসমান বিক্রিয়া ঘটে। 

Al(OH)3 + 3HCl → AlCl3 + 3H2O,,,

Mg(OH)2 + 2 Hcl → MgCl2 + 2H2O,,,

  • কেক তৈরিতে :-

সাধারণভাবে কেক তৈরিতে বেকিং পাউডার ব্যবহার করা হয়। বেকিং পাউডারে এসিড এবং ক্ষার এই দুইটি পদার্থ উপস্থিত থাকে। যার ফলে সোডিয়াম হাইড্রোজেন কার্বনেট এবং টাইটানিক এসে শুষ্কভাবে মেশানোর মাধ্যমে একটি বিক্রিয়া সম্পন্ন হয়ে যা একটি প্রশমন বিক্রিয়া। ফলে এটিকে ফোলাতে এবং নরম হতে কার্যকরী ভূমিকা পালন করে।

আরো পড়ুন: কার্বোহাইড্রেট জাতীয় খাবার তালিকা

এছাড়া দৈনন্দিন জীবনে কৃষি ক্ষেত্রে ব্যাপক ভূমিকা পালন করে বিভিন্ন ধরনের ধাতব আইনসমূহ পাশাপাশি মানুষের দাঁত কে শুরু করার জন্য এটি কার্যকরী ভূমিকা পালন করে। 

এই পোষ্টের মাধ্যমে আমরা আপনাদেরকে প্রশমন বিক্রিয়া সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য আলোচনা করার মাধ্যমে জানানোর চেষ্টা করেছি। 

আমাদের পোস্টে পড়ার মাধ্যমে আপনি প্রশমন বিক্রিয়া সম্পর্কে যে সকল তথ্য জানতে চান অথবা জানতে চেয়েছেন তা যথাযথভাবে জানতে পারবেন এবং উপকৃত হতে পারবেন। 

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button