ইসলামিকশিক্ষা

নবীদের নামের তালিকা অর্থসহ

আজকের এই পোস্টটির মাধ্যমে নবীদের নামের তালিকা অর্থসহ? সে সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চাইলে স্কিপ না করে সম্পুর্ণ পোস্টটি শেষ পর্যন্ত পড়ার অনুরোধ রইলো।

নবীদের নামের তালিকা অর্থসহ

ক্রমিক নং নবী ও রাসূলদের নাম বৈশিষ্ট্য/লকব

০১ হযরত আদম (আ) আদি পুরুষ । আবুল বাশার

লকবঃ সাফী উল্লাহ (আল্লাহর পছন্দনীয় )

০২ হযরত নূহ ( আঃ) প্রথম নবী ও রাসূল

লকবঃ নবীউল্লাহ (আল্লাহর নবী )

০৩ হযরত ইদরীস ( আঃ) জ্যোতি বিজ্ঞানের উদ্ভাবক

০৪ হযরত লূত ( আঃ) ইবরাহীম ( আঃ) এর ভ্রাতুষ্পুত্র

০৫ হযরত হুদ ( আঃ) তার নাম কুরানে মোট সাত বার এসেছে

০৬ হযরত সালেহ ( আঃ) নাকাতুল্লাহ (আল্লাহর উট হলো তার মুজেযা )

০৭ হযরত ইব্রাহীম ( আঃ)   লকবঃ খলীলুল্লাহ ( আল্লাহর বন্ধু )

০৮ হযরত ইসমাঈল ( আঃ) লকবঃ জবীহুল্লাহ (উৎসর্গীয়)

০৯ হযরত ইসহাক ( আঃ) ইবরাহীম ( আঃ) এর পুত্র

১০ হযরত ইয়াকুব ( আঃ) পবিত্র কুরানে তার নাম ১২ বার উল্লেখ করা হয়েছে।

১১ হযরত ইউসুফ ( আঃ) তার জীবনের ঘটনাকে (আহসানুল কাসাস) নামেঅভিহিত করা হয়েছে ।

১২ হযরত আইয়ূব ( আঃ) দীর্ঘ আঠার বছর অসুখ দিয়ে আল্লাহ তাকে পরিক্ষা করেছিলেন ।

১৩ হযরত যূল কুফল ( আঃ) কুরানের দুই সুরায় তার নাম এসেছে ।

১৪ হযরত শোয়াইব ( আঃ) সুপ্রসিদ্ধ বক্তা । হযরত মুসা ( আঃ) এর শ্বশুর

১৫ হযরত খিজির ( আঃ) তার নাম কোরআনে আছে কিন্তু তাকে নবী বলাহয় নাই ।

১৬ হযরত মূসা ( আঃ) লকবঃ কালীম উল্লাহ ( আল্লাহ এর সাথে কথোপকথন কারী )

১৭ হযরত হারুন ( আঃ) মূসা ( আঃ) এর ভাই ও সুবক্তা ।

১৮ হযরত দাউদ ( আঃ) সু কণ্ঠের অধিকারি ছিলেন ।

১৯ হযরত সুলায়মান ( আঃ) জ্বীন ও মানুষের বাদশা ছিলেন ।

২০ হযরত ইলিয়াস ( আঃ) বনী ইসরাইলদের অন্যতম শ্রেষ্ঠ নবী ।

২১ হযরত ইউনূস ( আঃ) লকবঃ যুনযুন ( মাছওয়ালা )

২২ হযরত আল ইয়াসা ( আঃ) বনী ইসরাঈলের একজন নবী ।

২৩ হযরত যাকারিয়া ( আঃ) হযরত ইয়াহিয়া ( আঃ) এর পিতা ।

২৪ হযরত ঈসা ( আঃ) আলোচিত হয়েছে ।

২৫ হযরত মুহাম্মদ ( আঃ) সর্বশেষ নবী ও রাসুল ।

লকবঃ রুহুল্লাহ ( আল্লাহর প্রদত্ত আত্তা )

কোরআনে বর্ণিত নবীদের নাম

২৫ জন নবী (আঃ) গণের কুরআনে বর্ণিত নাম:

১. হযরত আদম (আঃ)

২. হযরত নূহ (আঃ)

৩. হযরত হূদ (আঃ)

৪. হযরত ইদরীস (আঃ)

৫. হযরত সালেহ (আঃ)

৬. হযরত লূত্ব (আঃ)

৭. হযরত ইব্রাহীম (আঃ)

৮. হযরত ইসমাঈল (আঃ)

৯. হযরত ইসহাক্ব (আঃ)

১০. হযরত ইয়াকূব (আঃ)

১১. হযরত ইউসুফ (আঃ)

১২. হযরত আইয়ূব (আঃ)

১৩. হযরত শু’আয়েব (আঃ)

১৪. হযরত মূসা (আঃ)

১৫. হযরত হারুন (আঃ)

১৬. হযরত ইউনুস (আঃ)

১৭. হযরত দাঊদ (আঃ)

১৮. হযরত সুলায়মান(আঃ)

১৯. হযরত ইলিয়াস (আঃ)

২০. হযরত আল ইয়াসা (আঃ)

২১. হযরত যুল-কিফল (আঃ)

২২. হযরত যাকারিয়া (আঃ)

২৩. হযরত ইয়াহ্ইয়া (আঃ)

২৪. হযরত ঈসা (আঃ)

২৫. হযরত মুহাম্মাদ (সাঃ)

নবীগণের নামের তালিকা

হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) = লকবঃ রুহুল্লাহ/ আল্লাহর প্রদত্ত আত্মা। আবার হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) সর্বশেষ রাসূল ও নবী, এবং আল্লাহর রসূল ও সর্বশেষ নবী হলেন তিনি।

উযায়ের (আঃ) = ইহুদীরা তাকে আল্লাহর পুত্র বলতেন।

যুল-কারনায়েন (আঃ) =তিনি আলেকজান্ডার বলা হয়ে থাকে দিগ্রেট, কিন্তু তা ঐতিহাসিক অনুমান, সেইটা সঠিক নয়।

শীস (আঃ) = লকবঃ হিবাতুল্লাহ/ আল্লাহরদান।

হউশা (আঃ) = লকবঃ মূসা (আঃ) উনার বিশিষ্ট সহচর।

শাময়ূন (আঃ) =দাউদ (আঃ) এর পূর্বে তিনি এমন ভাবে আবির্ভূত হন।

লূত (আঃ) = ইবরাহীম (আঃ)-এর ভ্রাতুষ্পুত্র।

হুদ (আঃ) =পবিত্র কোরআনে তাঁর নাম সাত বার এসেছে।

সালেহ (আঃ) = নাকাতুল্লাহ/ আল্লাহর উট হলো তাঁর মুজেযা।

ইবরাহীম (আঃ) = লবকঃ খালীলুল্লাহ/ আল্লাহর বন্ধু।

যূল কুফল (আঃ) = পবিত্র কুরআনের এমন দুইটা সূরায় তাঁর নাম এসেছে।

শোয়াইব (আঃ) =সুপ্রসিদ্ধ বক্তা ও মূসা (আঃ) তার শ্বশুর।

খিজির (আঃ) = অনেকেই তাকে নবী ও বলেন।

মূসা (আঃ) = লকবঃ কালীম উল্লাহ/কথোপকথন কারী আল্লাহর সাথে।

হারুন (আঃ) = মূসা (আঃ) এর ভাই এবং সুবক্তা।

দাউদ (আঃ) = সুকণ্ঠের অধিকারী ছিলেন।

সুলায়মান (আঃ) =জ্বীন ও মানুষের বাদশা ছিলেন।

জারজীস (জজীস) = মুজাহিদ এবং বনী ইসরাঈলের নবী।

খানূক (আঃ) = বনী ইসরাঈলের নবী ছিলেন।

দানিয়াল (আঃ) = মূসা (আঃ) মৃত্যুর পরেই তিনি আসেন।

হিযক্বীল (আঃ) = পবিত্র কুরআনের একটি সূরা তাঁর নামে এমন নামকরণ করেছেন আল্লাহ।

ইসমাঈল (আঃ) = লকবঃ জবীহুল্লাহ/ উৎসর্গীকৃত।

ইসহাক (আঃ) =ইবরাহীম (আঃ) এর পুত্র; তাঁর নাম পবিত্র কুরআনে সতেরো বার এসেছে।

ইয়াকুব (আঃ) =পবিত্র কুরআনে তাঁর নাম  ১২ জায়গায় উল্লেখ করা হয়েছে।

ইউসুফ (আঃ) = তার জীবনের ঘটনাকে “আহসানুল কাসাস” নামে নানা ভাবে অভিহিত করা হয়েছে।

নবীদের নামের তালিকা অর্থসহ
নবীদের নামের তালিকা অর্থসহ

নবীদের ধারাবাহিক নামের তালিকা

০১ আদম (আঃ) আদি পুরুষ। লকবঃ আবুল বাশার (মানবজাতির পিতা) সাফী উল্লাহ। (আল্লাহর পছন্দনীয়)

০২ নূহ (আঃ) প্রথম রাসূল ও নবী। লকবঃ নবীউল্লাহ/আল্লাহর নবী

০৩ ইদরীস (আঃ) জ্যোতি বিজ্ঞানের উদ্ভাবক ও শিক্ষাবিদ

০৪ লূত (আঃ) ইবরাহীম (আঃ)-এর ভ্রাতুষ্পুত্র

০৫ হুদ (আঃ) পবিত্র কোরআনে তাঁর নাম সাত বার এসেছে।

০৬ সালেহ (আঃ) নাকাতুল্লাহ/ আল্লাহর উট তাঁর মুজেযা

০৭ ইবরাহীম (আঃ) লবকঃ খালীলুল্লাহ/ আল্লাহর বন্ধু

০৮ ইসমাঈল (আঃ) লকবঃ জবীহুল্লাহ/ উৎসর্গীকৃত

০৯ ইসহাক (আঃ) ইবরাহীম (আঃ) এর পুত্র; তাঁর নাম পবিত্র কুরআনে ১৭ বার এসেছে।

১০ ইয়াকুব (আঃ) পবিত্র কুরআনে ১২ জায়গায় তাঁর নাম উল্লেখ করা হয়েছে।

১১ ইউসুফ (আঃ) তার জীবনের ঘটনাকে “আহসানুল কাসাস” নামে অভিহিত করেছিলেন।

১২ আইয়ূব (আঃ) দীর্ঘ আঠার বছর অসুস্থাবস্থায় থেকে আল্লাহর পরীক্ষায় পাশ করেন।

১৩ যূল কুফল (আঃ) পবিত্র কুরআনের দুই সূরায় তাঁর নাম এসেছে।

১৪ শোয়াইব (আঃ) সুপ্রসিদ্ধ বক্তা ও মূসা (আঃ)-এর শ্বশুর

১৫ খিজির (আঃ) যার নবুয়ত সম্পর্কে মতভেদ আছে। 

অনেকেই তাকে নবী ও বলেন।

১৬ মূসা (আঃ) কালীম উল্লাহ /  আল্লাহর সাথে কথোপকথন  কারী।

১৭ হারুন (আঃ) মূসা (আঃ) এর ভাই ও সুবক্তা।

১৮ দাউদ (আঃ) সুকণ্ঠের অধিকারী ছিলেন।

১৯ সুলায়মান (আঃ) জ্বীন ও মানুষের বাদশা ছিলেন।

২০ ইলইয়াস (আঃ) তিনি এখনো পৃথিবীর বুকে জীবিত আছেন।

২১ ইউনূস (আঃ) লকবঃ যুননুন/ মাছওয়ালা।

২২ আল ইয়াসা (আঃ) বনী ইসরাঈলের একজন নবী।

২৩ যাকারিয়া (আঃ) হযরত ইয়াহইয়া (আঃ) এর পিতা।

২৪ ঈসা (আঃ) আলোচিত হয়েছে।

২৫ হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) লকবঃ রুহুল্লাহ/ আল্লাহর প্রদত্ত আত্মা। হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) সর্বশেষ রাসূল ও নবী এবং, আল্লাহর রসূল ও সর্বশেষ নবী ছিলেন।

নবীদের নামের অর্থ

ক্রমিক নং নবীদের নাম নামের অর্থ   অবস্থানকৃত স্থান

হযরত আদম (আঃ) মাটির মানুষ, প্রথম মানুষ, মাটির সৃষ্টি। শ্রীলংকা ১০০০ বছর।

হযরত শীষ (আঃ) আল্লাহর দান উপমহাদেশ ৯১২ বছর।

হযরত নূহ (আঃ) মুক্তি বিশ্রাম থেকে জর্ডান ৯৫০ বছর।

হযরত শোআইব  (আঃ) অনুগ্রহ প্রাপ্ত আল্লাহ তায়ালার সিরিয়া ৮৮২ বছর।

হযরত সালেহ  (আঃ) ধার্মিক, ন্যায়নিষ্ঠ, অটুট, ভালো লেবানন ৫৮৬ বছর।

হযরত ইব্রাহীম  (আঃ) অন্তরঙ্গ বন্ধু ইরাক ১৯৫ বছর।

হযরত ইসমাঈল (আঃ) উদার,উৎসর্গীকৃত সৌদি আরব ১৩৭ বছর।

হযরত ইসহাক (আঃ) একজন হাস্যময়ী    ফিলিস্তিন ১৫০ বছর।

হযরত ইয়াকুব (আঃ) স্থলাভিষিক্ত, দোয়েল পাখি। ফিলিস্তিন ১২৯ বছর।

১০ হযরত ইউসুফ (আঃ)    বৃদ্ধির দান ফিলিস্তিন ১১০ বছর।

১১ হযরত মূসা (আঃ) সংরক্ষিত, রক্ষা কর্তা মিশর ১২৫ বছর।

১২ হযরত হারুন (আঃ) পাহাড়,পর্বত মিশর ১১৯ বছর।

১৩ হযরত লূত (আঃ) সংজ্ঞা, ভাগ্যবান জর্ডান ১২৪ বছর।

১৪ হযরত ইয়াহ-ইয়া  (আঃ) সক্রিয়, আধুনিক, বন্ধুত্বপূর্ণ ফিলিস্তিন ৯৫ বছর।

১৫ হযরত আইয়ুব  (আঃ) প্রত্যাবর্তনকারী নবী সিরিয়া ১৪০ বছর।

১৬ হযরত ইউনুস (আঃ) প্রভুর উপহার ইসরাইল ১২৩ বছর।

১৭ হযরত হুদ (আঃ) পথ- প্রদর্শন ইয়েমেন ২৭০ বছর।

১৮ হযরত আল-ইয়াসা (আঃ) স্বাচ্ছন্দ্য, বিলাসিতা জর্ডান ১১০ বছর।

১৯ হযরত দাউদ (আঃ)  আল্লাহর বন্ধু বনি ইসরাইল বংশে ১২০ বছর।

২০ হযরত ইদ্রিস (আঃ) শিক্ষায় ব্যস্ত ব্যাক্তি, অধ্যয়ন্রত ইরাক ৩৬৫ বছর।

২১ হযরত ইউশা বিন নুন (আঃ) নবীদের একজন ছিলেন ফিলিস্তিন ১৪৭ বছর।

২২ হযরত যুলকিফল (আঃ) দ্বিগুনের অধিকারী, তুরস্ক ৭৫ বছর।

২৩ হযরত সোলাইমান (আঃ) শান্তিপ্রিয় ইসরায়েল ১৩৭ বছর।

২৪ হযরত যাকারিয়া (আঃ) সৃষ্টি কর্তার স্মরন, মনে করা ফিলিস্তিন ২০৭ বছর।

২৫ হযরত ঈসা (আঃ) পবিত্র ফিলিস্তিন পৃথিবীতে ৩৩ বছর অবস্থান করেন।

২৬ হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) প্রশংসিত সৌদি আরব।

সব নবীদের নামের তালিকা

ক্রমিক নং নবীদের নাম নামের অর্থ  অবস্থানকৃত দেশ

হযরত আদম (আঃ) মাটির মানুষ, প্রথম মানুষ, মাটির সৃষ্টি। শ্রীলংকা ১০০০ বছর।

হযরত শীষ (আঃ) আল্লাহর দান উপমহাদেশ ৯১২ বছর।

হযরত নূহ (আঃ) মুক্তি বিশ্রাম থেকে জর্ডান ৯৫০ বছর।

হযরত শোআইব  (আঃ) অনুগ্রহ প্রাপ্ত hআল্লাহ তায়ালার সিরিয়া ৮৮২ বছর।

হযরত সালেহ  (আঃ) ধার্মিক, ন্যায়নিষ্ঠ, অটুট, ভালো লেবানন ৫৮৬ বছর।

হযরত ইব্রাহীম  (আঃ) অন্তরঙ্গ বন্ধু ইরাক ১৯৫ বছর।

হযরত ইসমাঈল (আঃ) উদার, উৎসর্গীকৃত সৌদি আরব ১৩৭ বছর।

হযরত ইসহাক (আঃ) একজন হাস্যময়ী ফিলিস্তিন ১৫০ বছর।

হযরত ইয়াকুব (আঃ) স্থলাভিষিক্ত, দোয়েল পাখি। ফিলিস্তিন ১২৯ বছর।

১০ হযরত ইউসুফ (আঃ)    বৃদ্ধির দান ফিলিস্তিন ১১০ বছর।

১১ হযরত মূসা (আঃ) সংরক্ষিত, রক্ষা কর্তা মিশর ১২৫ বছর।

১২ হযরত হারুন (আঃ) পাহাড়, পর্বত মিশর ১১৯ বছর।

১৩ হযরত লূত (আঃ) সংজ্ঞা, ভাগ্যবান জর্ডান ১২৪ বছর।

১৪ হযরত ইয়াহ-ইয়া  (আঃ) সক্রিয়, আধুনিক, বন্ধুত্বপূর্ণ ফিলিস্তিন ৯৫ বছর।

১৫ হযরত আইয়ুব  (আঃ) প্রত্যাবর্তনকারী নবী সিরিয়া ১৪০ বছর।

১৬ হযরত ইউনুস (আঃ) প্রভুর উপহার ইসরাইল ১২৩ বছর।

১৭ হযরত হুদ (আঃ) পথ- প্রদর্শন ইয়েমেন ২৭০ বছর।

১৮ হযরত আল-ইয়াসা (আঃ) বিলাসিতা জর্ডান ১১০ বছর।

১৯ হযরত দাউদ (আঃ)  আল্লাহর বন্ধু বনি ইসরাইল বংশে ১২০ বছর।

২০ হযরত ইদ্রিস (আঃ) শিক্ষায় ব্যস্ত ব্যাক্তি ইরাক ৩৬৫ বছর।

২১ হযরত ইউশা বিন নুন (আঃ) নবীদের একজন ছিলেন ফিলিস্তিন ১৪৭ বছর।

২২ হযরত যুলকিফল (আঃ) দ্বিগুনের অধিকারী, তুরস্ক ৭৫ বছর।

২৩ হযরত সোলাইমান (আঃ)   শান্তিপ্রিয় ইসরায়েল ১৩৭ বছর।

২৪ হযরত যাকারিয়া (আঃ) সৃষ্টি কর্তার স্মরনে, মনে করা ফিলিস্তিন ২০৭ বছর।

২৫ হযরত ঈসা (আঃ) পবিত্র ফিলিস্তিন পৃথিবীতে ৩৩ বছর অবস্থান করেন।

২৬ হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) প্রশংসিত সৌদি আরব।

আরো পড়ুন: মেয়েদের আনকমন নামের তালিকা 

২৫ জন নবীর নাম

১. হযরত আদম (আঃ)

২. হযরত নূহ (আঃ)

৩. হযরত হূদ (আঃ)

৪. হযরত ইদরীস (আঃ)

৫. হযরত সালেহ (আঃ)

৬. হযরত লূত্ব (আঃ)

৭. হযরত ইব্রাহীম (আঃ)

৮. হযরত ইসমাঈল (আঃ)

৯. হযরত ইসহাক্ব (আঃ)

১০. হযরত ইয়াকূব (আঃ)

১১. হযরত ইউসুফ (আঃ)

১২. হযরত আইয়ূব (আঃ)

১৩. হযরত শু’আয়েব (আঃ)

১৪. হযরত মূসা (আঃ)

১৫. হযরত হারুন (আঃ)

১৬. হযরত ইউনুস (আঃ)

১৭. হযরত দাঊদ (আঃ)

১৮. হযরত সুলায়মান(আঃ)

১৯. হযরত ইলিয়াস (আঃ)

২০. হযরত আল ইয়াসা (আঃ)

২১. হযরত যুল-কিফল (আঃ)

২২. হযরত যাকারিয়া (আঃ)

২৩. হযরত ইয়াহ্ইয়া (আঃ)

২৪. হযরত ঈসা (আঃ)

২৫. হযরত মুহাম্মাদ (সাঃ)

এই পোস্টটির মাধ্যমে নবীদের নামের তালিকা অর্থসহ সে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো, আপনি যদি উপকৃত হয়ে থাকেন তাহলে অবশ্যই আপনার বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করবেন। ধন্যবাদ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button