টেকনোলজি

অনলাইন ট্রেন টিকেট বুকিং টাইম ও নিয়ম

অনলাইন ট্রেন টিকেট বুকিং টাইম আজকের এই পোষ্টের মাধ্যমে আপনাদেরকে আমরা দেখিয়ে দিব কিভাবে আপনারা অনলাইনের মাধ্যমে ট্রেনের টিকিট বুকিং করতে পারবেন আপডেটভাবে ২০২৩ সালের।

Table of Contents

রেলওয়ে টিকেট অনলাইন বুকিং

রেলওয়ে টিকিট এখন অনলাইনেও বুকিং করা যায়। বিশেষ করে রেল স্টেশনে গিয়ে দাঁড়িয়ে থাকার ঝামেলা থেকে মুক্ত পাওয়ার জন্য আমরা অনেকেই অনলাইন থেকে রেলের টিকিট বুকিং করতে চাই।

সেক্ষেত্রে আমাদের অনেক সুবিধা হয় আমাদের অনেক রকমের সময় বেঁচে যায় রাস্তাঘাটে যানজট থেকে আমরা মুক্তি পেয়ে যাই।

অনলাইন থেকে টিকিট কাটার সুবিধার জন্য আমরা এখন ঘরে বসে মোবাইল কম্পিউটার ও ল্যাপটপ এর মাধ্যমে অনলাইন থেকে আমরা ট্রেনের টিকিট কাটতে পারি।

ট্রেনের টিকিট কাটার জন্য আমাদেরকে বিশেষ বিশেষ কিছু ধাপ পেরিয়ে যেয়ে টিকিট টি কাটতে হয়।

ওই ধাপগুলো সম্পর্কে বিস্তারিত ভাবে দেখিয়ে দিব যে স্টেপ বাই স্টেপ কোনগুলি আপনাকে বা কিভাবে আপনাকে যেতে হবে সেগুলি দেখিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করব।

অবশ্যই সম্পূর্ণ পশ্চিম মনোযোগ সহকারে দেখবেন নইলে আপনার টিকিট কাটতে সমস্যায় পড়ে যাবেন।

সামনে ঈদ চলে এসেছে ঈদে বাড়ি যাওয়ার লক্ষ্যে আমরা অনেকেই অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটি কেননা এখন সাধারণত স্টেশনগুলোতে টিকিটে অনেক বড় লম্বা লাইন দাঁড়িয়ে থাকে।

তাই আমরা অনেকেই অনলাইনে টিকিট কাটতে চাই কিন্তু আমরা সকল প্রসেস গুলো ভালোভাবে না পারার কারণে অনলাইন থেকে টিকিট কাটতে পারি না।

আপনি আমাদের পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়লে এখান থেকে আপনি অবশ্যই অনলাইন থেকে টিকিট কাটতে পারবেন।

ট্রেন অনলাইন টিকেট | রেলওয়ে অনলাইন টিকেট

টিকিট কাটার জন্য ট্রেনের অনলাইনে গিয়ে আপনাকে চার্জ দিতে হবে

eticket.railway.gov.bd এটি লিখে সার্চ দিলে আপনি তাদের ওয়েবসাইটে ভিজিট করুন।

আপনার যদি ইতিপূর্বে ই টিকিটের কোন একাউন্ট খোলা না থাকে।

তাহলে অবশ্যই আপনাকে রেজিস্ট্রেশন করে ইমেইল মোবাইল নাম্বার দিয়ে নতুন একটি একাউন্ট খুলতে হবে।

আপনি যেভাবে একাউন্ট খুলতে পারবেন একাউন্ট খুলতে হয়ে যা জানতে এখানে থেকে দেখে নিন।

টিকিট বুকিং করার জন্য পছন্দের ট্রেন বেছে নিন

আপনি রেজিস্ট্রেশন থেকে যেতে চাচ্ছেন সেটা হল ফরম।

Frome: এখানে গিয়ে আপনি যেখান থেকে যাত্রা শুরু করবেন সে জায়গার নামটি এখানে বসিয়ে দিন।

To: এটা হল আপনি যে স্টেশনে গিয়ে নামবেন বা যে স্টেশনে গিয়ে আপনার যাত্রা টি সমাপ্তি হবে সে জায়গার নামটি এখানে বসিয়ে দিতে হবে।

Jouner date: ডেট অপশনে গিয়ে আপনি কত তারিখে যাত্রা শুরু করবেন সে তারিখটি সেখানে লিখুন।

তবে অবশ্যই আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে যে আপনি পাঁচ দিন আগে টিকিট কাটতে পারবেন তার বেশিদিন আগে টিকিট কাটতে পারবেন না।

ফাইন ট্রাক অপশনে ক্লিক করুন।

সিট এবং টেন সিলেকশন করুন

আপনি যেখানে ডেটটি সিলেট করছেন বাজে তারিখে যেতে চাচ্ছেন সে তারিখে যেসব ট্রেন রয়েছে সে ট্রেনগুলোর নাম দেখানো হবে।

এবং যে সিটগুলি ফাঁকা রয়েছে সে সিট গুলি আপনাকে সবুজ হয়ে থাকবে বুকিং হয়ে গেছে সেগুলি হলুদ হিসেবে দেখতে পাবেন।

এখানে সবুজ রঙের যে সিট গুলি দেখানো হয়েছে সেগুলি ফাঁকা রয়েছে সেখান থেকেই আপনি আপনার পছন্দ মত একটি সিট বাছাই করে নিতে

পারবেন এবং স্থির বাছাই করে নিয়ে এসে এটার উপরে ক্লিক করুন।

ওখানে ক্লিক করার পরে ভিউ স্ট্যাটাস অপশনে ক্লিক করে আপনি আপনার পছন্দের সিটটি বুকিং করে ফেলুন।

মূল্য পরিশোধ টিকিটের

আপনি যে স্থান থেকে যে স্থানে যাবেন সেখানে যাওয়ার জন্য আপনার সিটের ক্যাটাগরি অনুযায়ী,

যত টাকা লাগবে সেতো টাকার মূল্য আপনাকে অবশ্যই পরিশোধ করতে হবে।

আপনি সিটের যেমন ক্যাটাগরি সিলেট করবেন সে কাটা গাড়ি হিসেবেই আপনার কাছ থেকে আপনার সিট টেনের ভাড়া রাখা হবে।

বিকাশ রোকেট নগদ উপায় ও ভিসা কার্ডের মাধ্যমে আপনি আপনার টিকিটের বিল পরিশোধ করতে পারবেন।

অনলাইন ট্রেন টিকেট বুকিং টাইম

অনলাইনে ট্রেন টিকিট বুকিং টাইম বলতে এখানে বুঝানো হয়েছে যে আপনি যে টিকিট বুকিং

করছেন বা জে টিকিটি বুকিং করবেন। সে টিকিটটি টাইম সম্পর্কে ধারনা।

বিস্তারিত অনলাইন ট্রেন টিকিট বুকিং টাইম সম্পর্কে আপনাদেরকে এখানে জানিয়ে দেওয়া হবে জানানোর চেষ্টা করতেছি।

অনলাইন ট্রেন টিকেট বুকিং

অনলাইনের টিকিট কাটতে

আপনি যখন সর্ব প্রথম অনলাইনের টিকিটটি কাটতে যাবেন তখন অবশ্যই আপনাকে একটি অ্যাকাউন্ট লগইন করে সেখানে ঢুকতে হবে।

আপনি যে তারিখে যেতে চাচ্ছেন সে তারিখে আপনি দেখতে পাবেন যে ওই তারিখের ওই সময় কোন কোন ট্রেন ফাঁকা রয়েছে।

এবং ট্রেনগুলো কোন ট্রেন কোন সময় যাবে? সেটিও সেখানে আপনাকে দেখিয়ে দেওয়া হবে।

আপনি আপনার পছন্দের সময় অনুযায়ী এবং পছন্দের ট্রেন বেছে নিয়ে সেখান থেকে সিলেট করে দিতে পারবেন।

ধরুন আপনি দুপুর ২ টার সময় যেতে চাচ্ছেন তাই দুপুর দুটোর সময় যেতে হলে আপনাকে ওই তারিখে,

দুপুর ২ টার সময় যে ট্রেনটি যাবে সে ট্রেনটির টিকিট সংগ্রহ করতে হবে।

ট্রেনের টিকিট বুকিং করার সময় অবশ্যই আপনাকে টাইম দিতে খেয়াল রাখতে হবে কেননা ট্রেনের টিকিট বুকিং করার ক্ষেত্রে টাইম টি অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা।

ট্রেন কারো জন্য অপেক্ষা করবে না ট্রেন ট্রেনের সময় মতোই চলে যাবে আপনি যদি ভুল টাইম সিলেক্ট করেন এবং ভুল সবাই আসেন তাহলে আপনার ট্রেন মিস করার চার্জ রয়েছে।

তাই ট্রেনের টিকিট বুকিং করার সময় অবশ্যই আপনাকে ট্রেনের টিকিটের টাইমটির প্রতি ভালোভাবে খেয়াল রাখতে হবে এবং সেটি অবহেলা করলে চলবে না।

অনলাইন ট্রেন টিকেট বুকিং

অনলাইন ট্রেন টিকেট বুকিং টাইম ও নিয়ম অনলাইন থেকে টিকিট কাটার সুবিধার জন্য আমরা এখন ঘরে বসে মোবাইল কম্পিউটার ও ল্যাপটপ এর মাধ্যমে অনলাইন থেকে আমরা ট্রেনের টিকিট কাটতে পারি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button